পাসপোর্ট এর স্টেটাস চেক করুন অনলাইনে ও জেনে নিন পাসপোর্ট করতে কি কি লাগে

আমরা সবাই এখন পাসপোর্ট এর গুরুত্ব ও প্রয়োজনীয়তার বিষয়ে সমানভাবে অবগত। এই একবিংশ শতাব্দীতে একজন সচেতন নাগরিক, ও ভ্রমণ পিপাশু সকল ব্যাক্তির কাছে পাসপোর্ট থাকা আবশ্যক। কারণ আমদের শিক্ষা, চিকিৎসা, গবেষণা,  ভ্রমণ সহ নানাবিধ প্রয়োজনে দেশের বাইরে যাওয়ার প্রয়োজন দেখা দেয়। তাই আমরা প্রথমেই জেনে নেব বাংলাদেশের একটি পাসপোর্ট করতে কি কি ডকুমেন্টস প্রয়োজন পরবেঃ

 বাংলাদেশের পাসপোর্ট করতে যে যে ডকুমেন্টস লাগবেঃ

  • নাগরিকত্ব এর প্রত্যয়ন পত্র
  • পাসপোর্ট পুরণকৃত ফরম দুই কপি
  • সত্যায়িত সদ্যতোলা পাসপোর্ট সাইজের দুই কপি রঙিন ছবি
  • জন্মসনদ বা জাতীয় পরিচয়পত্রের দুই কপি সত্যায়িত ফটোকপি
  • টাকা জমা দেওয়ার ব্যাংক রসিদ

নিজেই নিজের পাসপোর্ট স্টাটাস  চেক করুন অনলাইনে মোবাইল বা কম্পিউটার দিয়েঃ

বাড়িতে বসে , আপনি জানতে পারবেন আপনার পাসপোর্টের আবেদন সঠিক 

প্রক্রিয়ায় করা হয়েছে কিনা, আপনার পাসপোর্টের অবস্থা এখন কি, এর পরবর্তী  অবস্থা কি হবে, পরবর্তী ধাপ কি হবে, আপনার পাসপোর্ট প্রিন্ট করা হয়েছে কিনা, অথবা আপনার পাসপোর্ট আপনাকে দেওয়ার জন্য প্রস্তুত কিনা। এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর পাবেন আজকেই এই তথ্যবহুল ও জ্ঞানগর্ভ আলোচনায়।

 এই আলোচনায় আমি দেখাবো কিভাবে শুধুমাত্র আপনার হাতের ইন্টারনেট  সংযোগ যুক্ত স্মার্টফোন দিয়ে বাংলাদেশের যেকোন পাসপোর্ট এর স্ট্যাটাস চেক করবেন। যার জন্য আপনাদের প্রয়োজন হবেঃ 

  • ইন্টারনেট সংযোগ
  • যে কোন ইলেকট্রনিক ডিভাইস যাতে নেট ব্রাউজিং করা যায়, যেমনঃ স্মার্টফোন, ট্যাব, ডেস্কটপ বা ল্যাপটপ কম্পিউটার।  
  • বাংলাদেশ পাসপোর্ট এর ওয়েবসাইট লিংক।
  • যার পাসপোর্ট স্টাটাস চেক করবেন তার স্লিপে দেওয়া ইনরোলমেন্ট আইডি
  • এবং তার জন্মতারিখ 

 এইসব তথ্য ও ডিভাইস থাকলে আপনি আপনার নিজের পাসপোর্ট নম্বর ব্যবহার করে অনলাইনে আপনার পাসপোর্ট স্টাটাস যাচাই করতে পারবেন। এখন আমি বলবো কিভাবে অনলাইনে  পাসপোর্ট চেক করবেন বা পাসপোর্ট এর স্টাটাস জানতে পারবেন। নিম্নে সমস্ত প্রক্রিয়া সবিস্তরে ব্যাখ্যা করে দেওয়া হলোঃ 

শুরুতেই, বাংলাদেশ পাসপোর্ট আ্যপ্লিকেশন স্টাটাস চেক করার জন্য, পাসপোর্ট  নম্বর জানতে হবে বা যে ইনরোলমেন্ট নম্বর আপনাকে পাসপোর্ট অফিস একটি স্লিপের মাধ্যমে প্রদান করেছিল সেই নম্বর ও জন্মতারিখ এর তথ্যনিয়ে  আপনাকে আপনার মোবাইল বা কম্পিউটারে যেকোনো ব্রাউজার খুলতে হবে। এরপর এই ব্রাউজার ওপেন হলে তার এড্রেস বারে www.passport.gov.bd এই এড্রেসটি টাইপ করুন। আপনি যে এড্রেস টি  লিখলেন, এটি আমাদের বাংলাদেশের অফিশিয়াল  পাসপোর্ট সাইট। 

এই এড্রেস এ গেলে আপনার উইন্ডোতে বাংলাদেশ পাসপোর্ট এর অফিশিয়াল উইন্ডো ওপেন হবে। নিচের পিকচার এর মতো

এখানে দেখতে পাচ্ছেন এই উইন্ডোতে এপ্লিকেশন স্টাটাস নামে একটি বাটন আছে।  এই এপ্লিকেশন বাটনটিতে ক্লিক করেন। ক্লিকের মাধ্যমে আপনাকে নতুন একটি পেইজে নিয়ে যাওয়া হবে, এপ্লিকেশন  স্ট্যাটাস দেখানোর জন্য ।

কিভাবে বাংলাদেশে পাসপোর্ট নম্বর দিয়ে পাসপোর্ট চেক করবেন।

এপ্লিকেশন বাটন্টিতে  ক্লিক করলে আপনাকে দুটি জিনিসের তথ্যর জন্য অনুরোধ জানানো হবে। একটি রেজিস্ট্রেশন আইডি / ইনরোলমেন্ট আইডি, যেটি আপনি যখন পাসপোর্ট ফরম জমা দিয়েছিলেন তখন আপনাকে বাংলাদেশ পাসপোর্ট অফিস থেকে একটি স্লিপ দেওয়া হয়েছিল এবং তাতে একটি নম্বর ছিলো। এই নাম্বারটি ই হলো উক্ত ইনলোরমেন্ট আইডি। এবং অন্যটি জন্ম তারিখ, যা আপনি শুরুথকেই জানেন রবং আপনার এন আই ডি কার্ড বা জন্মনিবন্ধনে দেওয়া আছে। 

এই ওপেন হওয়া পেজে দুইটি ইনপুট দেওয়ার জন্য খালি ঘর আছে একটিতে আপনার থেকে ইনরোলমেন্ট আইডি নাম্বার এবং অপরটিতে  জন্ম তারিখ এর তথ্য চাওয়া হচ্ছে। এই দুটি ইনপুটের খালি ঘরে উক্ত দুইটি তথ্য যথাক্রমে প্রদান করুন। তারপরে ল, এর নিচেই আপনি স্ক্রিনে  একটি ক্যাপচা টাইপের কোড দেখতে পাবেন, উক্ত কোডটি  নিচের বাক্সে লিখুন। তারপর সার্চ বাটনে  ক্লিক করুন। তাহলে আপনার সামনে উক্ত প্রদানকৃত পাসপোর্ট এর যাবতীয় স্টাটাস বা  পাসপোর্টের অবস্থা জানতে পারবেন। উপরন্তু, আপনি আরো জানতে পারবেন যে আপনার পাসপোর্টেটি এখন কোন ধাপে আছে এবং এর জন্য আপনাকে কিকি  পদ্ধতি গ্রহণ করতে হতে পারে। এখানে পুলিশ ভেরিফিকেশন করা হলে আপনি সে তথ্য ও পেতে পারেন।

এইভাবে আপনি আমাদের বলা প্রক্রিয়া অনুসরণ করলে, আপনি ঘরে বসে আপনার মোবাইল দিয়ে অনলাইনে আপনার বা অন্যকারো পাসপোর্টের অবস্থা চেক করতে পারেন, যদি আপনার কাছে ইনরোলমেন্ট আইডি নাম্বার এবং জন্মতারিখ এই দুই বিষয়ের তথ্য থাকে। যদি আপনার এখনও এই বিষয়ে প্রশ্ন থাকে, আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন এবং আমরা আপনার প্রশ্নের উত্তর দেব। আপনার কমেন্ট করতে ভুলবেন না। 

ধন্যবাদ

Share:

Leave a Comment